7:11 pm - Sunday October 22, 2017

গত ৫ বছরে ২৩৩ মিলিয়ন রিংগিত ট্যাক্স ফাকি দিয়েছে মালয়েশিয়া্ন প্রবাসীরা

ইনল্যান্ড রেভিনিউ বোর্ডের (আইআরবি) সিইও সাবিন সামিতা বলেন, ২০১২ সাল থেকে মালয়েশিয়া ছেড়ে যাওয়া অভিবাসীদের কাছ থেকে ৫০ লাখ মার্কিন ডলার (RM২৩৩ মিলিয়ন ডলার) ট্যাক্স বকেয়া সংগ্রহ করা হয়নি।

তিনি বলেন, তাদের মধ্যে বেশিরভাগই সেবা খাত থেকে এসেছেন, এবং তারা প্রবাসীর আবেদনপত্রে তাদের প্রকৃত মজুরি বিকৃত করেছে বা শ্রমিকদের যেটা ন্যায্য মজুরি সেটা থেকে তারা কম পেয়েছে কোম্পানির কাছ থেকে।

“এই দেশে রেমিটেন্সের পরিমাণ এবং এই দেশের বিলাসবহুল জীবনধারা থেকে আমরা (এই) দেখতে পাচ্ছি”, মাইগ্রপেইটস আয়ের সংগ্রহের জন্য মাইয়েক্সপ্যাট সিস্টেম চালু করার পরে সাংবাদিকদের জানান।

এছাড়াও মালয়েশিয়ার অভিবাসন বিভাগের মহাপরিচালক মোস্তফার আলী উপস্থিত ছিলেন। সাবিন বলেন, প্রবাসীদের কাছ থেকে কর আদায় করার জন্য আইআরবি ৭৫ টি দেশের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় চুক্তি স্বাক্ষর করেছে।

তিনি বলেন, “যদিও আমাদের এখনও এমন একটি নির্দিষ্ট পদ্ধতি নেই তবে এই পদ্ধতিটি কার্যকর হিসাবে প্রমাণিত হয়েছে যে এটি অন্য কিছু দেশে করা হয়েছে”।

সাবিন বলেন, চলতি বছরে যেসকল বিদেশী শ্রমিক ট্যাক্স ফাঁকি দিবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। তাদেরকে ব্লাকলিস্ট অথবা মালয়েশিয়া ছেড়ে যেতে দেয়া হবে না অথবা তাদের জেল খাটতে হবে।

“আইআরবি একটি তদন্ত পরিচালনা করবে এবং মালয়েশিয়ায় প্রবাসী ও বিদেশী শ্রমিকদের নিয়ে আসা এইসব এজেন্টদের নিরীক্ষা করবে কারণ এজেন্টরা তাদের আয় বা কমিশন প্রকাশ করে না যা প্রবাসীদের কাছ থেকে পাওয়া যায় না”।

এই সমস্যা সমাধানের জন্য, তিনি বলেন, মালয়েশিয়া ছাড়ার আগে আইআরবি তাদের ট্যাক্সের অবস্থা পরীক্ষা করার জন্য প্রবাসী সেবা বিভাগ (ইএসডি) এর মাধ্যমে ইমিগ্রেশন ডিপার্টমেন্টের সাথে কাজ করবে। “যদি তারা ট্যাক্স দিতে ব্যর্থ হন, তবে প্রবাসীদের ছেড়ে যাওয়া বা মালয়েশিয়ায় প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না,” বলে তিনি বলেন।


Filed in: প্রবাস