5:22 am - Saturday August 19, 2017

বিশ্বের ১০৪ জন প্রতিযোগীকে টপকে বাংলাদেশকে এক অনন্য স্থানে নিয়ে গেলেন কিশোর হাফেজ তারিকুল !

সংযুক্ত আরব আমিরাতের বাণিজ্যিক রাজধানী দুবাইয়ে অনুষ্ঠিত হয় ২১তম আন্তর্জাতিক পবিত্র কুরআন প্রতিযোগিতা। সেখানে বিশ্বের ১০৩ জন প্রতিযোগীকে পিছনে ফেলে প্রথম স্থান অর্জন করেছে ১৩ বছর বয়সী বাংলাদেশি হাফেজ মুহাম্মদ তারিকুল ইসলাম।

তারিকুলের এমন কৃতিত্বের খবর বেশ গুরুত্বের সাথে প্রকাশ করেছে বিশ্ব গনমাধ্যম। গালফ নিউজের শিরোনাম ছিলো, ‘Bangladeshi boy, 13, wins Dubai Quran Award’।

এর আগে গত বুধবার গালফ নিউজের অনলাইনে হাফেজ তরিকুল সম্পর্কে বলা হয় , এ বছর এখন পর্যন্ত এ প্রতিযোগিতায় যত জন প্রতিযোগী পারফরমেন্স করেছেন- তার মধ্যে তরিকুল সেরা। সে ভালো করেই তবে পরের রাউণ্ডে উন্নীত হয়েছে। বাংলাদেশের অনেক প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়েছে তরিকুল। তাই তার বুকে সাহস, দুবাইয়েও সে বিজয়ের ধারা অব্যাহত রেখে এবার বিশ্ব দরবারে উচু করে রাখলো বাংলাদেশের সম্মান।

প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে হাফেজ তরিকুল ইসলাম সবাইকে তাক লাগিয়ে দেন। দুবাই চেম্বারসে উপস্থিত লোকজন তার কোরআন তেলাওয়াত শুনে অবাক। বিচারক ও উপস্থিত দর্শকরা তার অকুন্ঠ প্রশংসা করেছেন। বিশুদ্ধ কোরআন তেলাওয়াত, নির্ভুল প্রশ্নের উত্তর ও সুন্দর কন্ঠের জন্য এর আগে তিনি ১০৪ জন প্রতিযোগীর মাঝে সেরা ১০-এ জায়গা করে নেন তারিকুল ।

এরপর গতকাল বৃহস্পতিবার সেরা ১০ জনকে নিয়ে অনুষ্ঠিত হয় প্রতিযোগিতার ফাইনাল। সেখানে সেরা দশজনকে টপকে অর্জন করে নেন প্রথম স্থান ।

আল মামজার দুবাই সাংস্কৃতিক এবং বৈজ্ঞানিক অ্যাসোসিয়েশন মিলনায়তনে বৃহস্পতিবার ( ১৫জুন) আল-কোরআন পুরস্কার সংস্থার প্রেসিডেন্ট ইব্রাহীম বু মুলহার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ প্রতিযোগিতায় প্রধান অতিথি দুবাইয়ের ক্রাউন প্রিন্স আহমদ বিন মোহাম্মদ বিন রাশেদ আল মাকতুমের কাজ থেকে ২ লাখ ৫০ হাজার দিরহাম ( ৫,৪৯২,৫০০ টাকা) প্রাইজ মানি নেন মুহাম্মদ তারিকুল ইসলাম।

হাফেজ তরিকুলের সঙ্গে থাকা তার শিক্ষক যাত্রাবাড়ির মারকাজুত তাহফিজ ইন্টারন্যাশনাল হিফজ মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক হলেন হাফেজ ক্বারী নেছার আহমাদ আন নাছিরী ফোনে সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, তারিকুল আল্লাহর অশেষ রহমতে ১০৪ জন প্রতিযোগীর মাঝে প্রথম স্থান অধিকার করেছে। দেশবাসীর কাছে আমি তরিকুলের জন্য দোয়াপ্রার্থী। তিনি আরও জানান, হাফেজ তরিকুল মাত্র এক বছরে পবিত্র কোরআনের হাফেজ হয়েছেন।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, দুবাই ও উত্তর আমিরাত বাংলাদেশ কনস্যুলেটের কনসাল জেনারেল এস বদিরুজ্জামান, কনস্যুলেটের লেবার কাউন্সিলর এএসএম জাকির হোসেন, আমিরাতের সম্মানিত ব্যক্তিবর্গ-সহ বিভিন্ন দেশে থেকে আগত অতিথি বৃন্দ।

এতে অন্যান্য বিজয়ীয়া হলেন, যথাক্রমে হুজাইফ সিদ্দিকী (মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র), মাদুর জোবে (গাম্বিয়া), আহমেদ বিন আব্দুল আজিজ ইব্রাহিম ওবাইদাহ (সৌদি আরব), রশিদ ইবনে আবদুল রহমান আলানি (তিউনিশিয়া), মোহনা আহমেদ (বাহরাইন), মোহাম্মদ হাদি আল-বশির (লিবিয়া), ওমর মাহমুদ সায়েদ আলী সৈয়দ আহমেদ রিফাই (কুয়েত), মোহামমু আবেকা (মৌরিতানিয়া), হাবিনানা মিকিনি (রওয়ানা) এবং মোহামেদ ইসমাইল মোহাম্মদ নাগিব তাহা (মিশর)।


Filed in: ইসলাম ও জীবন